Corona

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নাটোরে পুলিশের ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। সচেতনতামূলক প্রচারপত্র বিলি, মাইকিং, কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে জনগণকে সচেতন করা ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা সহ নানাবিধ কার্যক্রম করছেন নাটোর জেলা পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা।

সোমবার ৩০ মার্চ দুপুরে লকডাউন পরবর্তী বাগাতিপাড়া মডেল থানা পুলিশের কার্যক্রম তদারকি ও গণজামায়েতে এড়াতে বাগাতিপাড়ার তমালতলা বাজার পরিদর্শনে করেন তিনি। এ সময় সকলকে করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের দেওয়া নির্দেশনা মেনে চলতে আহ্বান জানান । বাজার এলাকার গণজামায়েতে এড়াতে ব্যবসায়ীদের শুধুমাত্র পরামর্শ দিয়েই শেষ করেননি। এ সময় কাঁচা বাজারের দোকানীদের মধ্য বিনামূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করা হয়। বাজার এলাকায় আগত যানবাহনে জীবাণুনাশক স্প্রে করে পুলিশের একটি দল।
বেশ কয়েকজন কাঁচামাল ব্যবসায়ীকে যখন পুলিশ সুপার স্যানিটাইজারের ব্যবহার শিখিয়ে দিচ্ছিলেন, তখন ইয়ার আলী নামের কাঁচামাল বিক্রেতা
আবেগাপ্লুত হয়ে বললেন পুলিশের বড় অফিসার হওয়ার পরেও তিনি আমাদের হাতে স্যানিটাইজার ঢেলে দিয়ে ব্যবহার শেখালেন। সত্যি তিনি মহৎ মনের মানুষ। কেনাবেচা সম্পর্কে তিনি আমাদেরকে অনেক ভালো পরামর্শ দিয়েছেন আমরা সেভাবেই কেনাবেচা করব।

বাজার পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন নাটোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আকরামুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আবুল হাসনাত, ওসি ডিবি আনারুল ইসলাম, বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি আব্দুল মতিন, কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ক্যাবর বাগাতিপাড়া উপজেলা শাখার সভাপতি আব্দুল মজিদ প্রমুখ।